» গোলাপগঞ্জে চন্দরপুর-সুনামপুর সেতুর রাস্তা ভাঙ্গন

প্রকাশিত: ০৫. এপ্রিল. ২০১৭ | বুধবার

কে এম সুহেল আহমদঃ সাম্প্রতিক কালের একটানা ভারী বর্ষণের ফলে গোলাপগঞ্জের কুশিয়ারা নদীর উপর নির্মীত চন্দরপুর-সুনামপুর সেতুর সুনামপুর অংশে রাস্তার পীচ উঠে ভেঙ্গে বড় ধরনের গর্তের সৃষ্টি হয়েছে।

এমতাবস্থায় গোলাপগঞ্জ ও বিয়ানীবাজারের যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধসহ বাড়তে পারে বড় ধরনের দূর্ঘটনা।

সরেজমিন গিয়ে স্থানীয়দের কাছ থেকে জানা যায়, গত ২৯ মার্চ (বুধবার)থেকে  এখন পর্যন্ত ভাঙ্গা অবস্থা। আস্তে আস্তে বিরাট আকারের গর্ত হয়ে যাচ্ছে। এভাবে চলতে থাকলে গোলাপগঞ্জ-বিয়ানীবাজারবাসী তথা দু উপজেলার হাজার হাজার জন সাধারণের চলাচল ও যান যোগাযোগ বন্ধ হতে পারে এমন ধারণা স্থানীয়দের।

সুনামপুর মাদ্রাসার মুহতামিম মাওলানা হেলাল আহমদ সুনামপুরী বলেন, প্রায় এক সপ্তাহ হয়ে গেল রাস্তা ভেঙ্গে গর্ত হওয়ার কিন্তু দুঃখের বিষয় এখন ও গর্ত ভরাট করার কোন উদ্যোগ নেই। আজকের দিনে দিনে ঐ রাস্তার চলাচল বন্ধ হয়ে যেতে পারে। সেতুর রাস্তার এরুপ গর্ত হওয়ার  একমাত্র কারণ উল্লেখ করে বলেন, সেতুটি নির্মাণ কাজ শেষ হওয়ার আজ অবধি পানি নিস্কাশনের ড্রেনেজ ব্যবস্থা বেশ অর্ধেক না থাকায় সেতুতে জমে থাকা বৃষ্টির অতিরিক্ত পানি রাস্তার উপর দিয়ে বয়ে যায়। ফলে রাস্তা ভেঙ্গে বড় গর্তের সৃষ্টি হয়। তাই যে কোন সময় বড় ধরনের দূর্ঘটনা ও ঘটার সম্ভাবনা থেকে যায়।

সেখানকার স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে যাতায়াত করছেন।

সুনামপুর বাজারের জাবেদ বেডিং ষ্টোরের মালিক রুহুল ইসলাম, বিশিষ্ট মুরব্বী কমর উদ্দীন, দুদু মিয়া, জয়নাল সহ গ্রামের বিভিন্নজনের মতামত জানতে গিয়ে তারা বলেন,  রাস্তার উন্নয়নমূলক কাজের দূর্বলতাই আজকে আমাদের রাস্তার ভাঙ্গার দূর্গতি পোহাতে হচ্ছে।শুধু তাই নয়, সুনামপুরবাজার সংলগ্ন ইসলামপুর গ্রামের যাওয়ার রাস্তার আগে বিরাট গর্ত দীর্ঘ ৫ বছর থেকে পড়ে আছে। কর্তৃপক্ষের অবহেলায় কোন কাজ হচ্ছে না বিধায় আমরা অবহেলিত অবস্থায় পড়ে আছি বলে জানান তারা।

ঢাকাদক্ষিণ ইউপি’র ৬নং ওয়ার্ড সদস্য এম আব্দুল করিম কাসিমীর কাছ থেকে রাস্তার অবস্থা  জানতে গিয়ে তিনি বলেন, সেতুর রাস্তার কাজ নিম্নমানের হওয়াতেই এহেন দূর্গতি পোহাতে হচ্ছে আমাদের বিধায় পূণরায় রাস্তার কাজের সংস্কার প্রয়োজন।

এছাড়া ও সেতুর চন্দরপুরবাজার অংশের রাস্তার বিভিন্ন অংশে ভেঙ্গে গর্ত সৃষ্টি হওয়ার পথে।এছাড়া ও বিভিন্ন সময় সড়ক দূর্ঘটনায়  রাস্তার পার্শবর্তী যে পিলারগুলো আছে তার অনেকগুলো  ভেঙ্গে গিয়েছে। তাও মেরামতের কোন অবকাশ নেই।

সেতুর রাস্তার এ ধরনের অবস্থার সৃষ্টিতে সবাই ভয়াবহ আতংকের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন স্থানীয় এলাকাবাসী।

এজন্য এলাকাবাসী দ্রুত পদক্ষেপে বিরাটাকারের গর্ত ভরাট সংস্কার সহ রাস্তার সার্বিক কাজের তদারকীর জন্য উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সু দৃষ্ঠি কামনা করেন।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ৭৫১ বার

Share Button

Calendar

July 2017
M T W T F S S
« Jun    
 12
3456789
10111213141516
17181920212223
24252627282930
31  
Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com