» বানিয়াচঙ্গে বন্দুক যুদ্ধে ডাকাত নিহত

প্রকাশিত: ০৩. আগস্ট. ২০১৭ | বৃহস্পতিবার

নিজস্ব প্রতিনিধি : হবিগঞ্জের বানিয়াচং উপজেলায় পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ সাইফুল ইসলাম ঝিলিকী (৩২) নামে এক ডাকাত নিহত হয়েছে।

নিহত সাইফুল ইসলাম ঝিলকীর ডাকাত দলের সর্দার। তার বিরুদ্ধে একটি হত্যা, চারটি ডাকাতি, একটি চুরির ও চারটি দ্রুত বিচার আইনের মামলা রয়েছে। তার বিরুদ্ধে ৮টি গ্রেফতারি পরোয়ানা বানিয়াচং থানায় মুলতবি আছে।

বৃহস্পতিবার (৩ আগস্ট) গভীর রাত সোয়া ৩টার দিকে উপজেলার বানিয়াচ-শিবপাশা রোডের আঞ্জন এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ঝিলকী বানিয়াচং উপজেলা সদরের মাদারীটুলা গ্রামের মতিউর রহমানের ছেলে।

বানিয়াচং থানার ওসি মোজাম্মেল হক জানান, বুধবার বিকালে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে পুলিশ উপজেলার ইউসুফপুর গ্রামের ইছমত মিয়ার নির্জন বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ডাকাত ঝিলকী ও তার সহযোগী মন্তাজ মিয়াকে আটক করে।

পরে ঝিলকীর দেয়া তথ্য মতে তাকে নিয়ে পুলিশ অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও সহযোগী ডাকাতদের গ্রেফতার করতে বানিয়াচং শিবপাশা রোডের আঞ্জন এলাকায় অভিযানে যায়।

রাত সোয়া ৩টার দিকে আঞ্জন দিঘীরপার সংলগ্ন ব্রিজের উপর পৌঁছা মাত্র রাস্তার দু’পাশ থেকে তার সহযোগীরা রাস্তায় ব্যারিকেড দেয় এবং ঝিলকীকে ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। এসময় রাস্তার দু’পাশের হাওর হতে ডাকাতরা এলোপাতারি গুলি ছুঁড়তে থাকে। পুলিশও ১৫ রাউন্ড শর্টগানের গুলি চালায়।

একপর্যায়ে সহযোগী ডাকাতদের গুলিতে ঝিলকী গুলিবিদ্ধ হয়। তাকে উদ্ধার করে হবিগঞ্জ আধুনিক সদর হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ঘটনাস্থল থেকে একটি পাইপ গান, তিন রাউন্ড কার্তুজ, ৮টি গুলির খোসা, ৪টি রামদা উদ্ধার করা হয়েছে।

এই ঘটনায় চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে একজনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছেন। অন্যরা প্রাথমিক চিকিৎসা গ্রহণ করেছেন।

সহকারী পুলিশ সুপার (মিডিয়া) মো. নাজিম উদ্দিন বিষয়টির সত্যতা  নিশ্চিত করে বলেন, কুখ্যাত ডাকাত ঝিলকীর বিরুদ্ধে হত্যা, ডাকাতি, ছিনতাইসহ ৮টি মামলা আছে। পুলিশের গ্রেফতার এড়ানোর জন্য তিনি বিভিন্ন এলাকায় পালিয়ে থাকতেন।

এই সংবাদটি পড়া হয়েছে ১০২৩ বার

Share Button

Calendar

September 2017
M T W T F S S
« Aug    
 123
45678910
11121314151617
18192021222324
252627282930  
Facebook Auto Publish Powered By : XYZScripts.com