,

যে কারণে নায়িকা বুবলির মন খারাপ

বিনোদন ডেস্ক: সদ্য পরলোকগত নায়ক রাজ রাজ্জাক এবং বন্যা কবলিত মানুষের জন্য ভীষণ মন খারাপ বুবলির। তাই আগামী ঈদে তার মুক্তি প্রতীক্ষিত দুটি সিনেমা নিয়ে যে বড় প্রচারণায় নামার পরিকল্পনা ছিল তা থেকে পিছিয়ে এসেছেন তিনি। যতটুকু পারা যায় প্রচার মাধ্যমে অংশগ্রহণ করেই দুটি সিনেমার প্রচারের কাজ করছেন।

গেল বছর রোজার ঈদে তার অভিনীত দুটি সিনেমা প্রথম মুক্তি পায়। এক বছরেরও বেশি সময় অপেক্ষার পর কোরবানির ঈদে বুবলিকে আবারো দর্শক সিনেমা হলের পর্দায় দেখবেন। ‘রংবাজ’ এবং ‘অহংকার’ চলচ্চিত্রে তাকে দেখা যাবে শাকিব খানের বিপরীতে।

বুবলি জানান, দুটি চলচ্চিত্রে তার চরিত্র একেবারেই দু’রকম। একটির সাথে আরেকটির চরিত্রের কোনো মিল নেই। পাশাপাশি দুটি হলে ‘রংবাজ’ ও ‘অহংকার’ প্রদর্শিত হলে এবং একই দর্শক যদি পরপর দুটি সিনেমা উপভোগ করেন, তাহলে একটির বুবলির সাথে আরেক বুবলির মিল খুঁজে পাওয়া যাবে না।

বাংলাদেশের সিনেমায় নতুন আলোচিত সংযোজন বুবলি। আর তার সঙ্গে প্রতি সিনেমাতেই আছেন শাকিব খান। যে কারণে ঘুরে ফিরে বারবার আলোচনাতেই আসছেন বুবলি। বিষয়টি নিজের চলার পথে সৌভাগ্য হিসেবেই বিচেনা করেন তিনি। বুবলী বলেন,‘ বাংলাদেশ চলচ্চিত্রের এই সময়ের শীর্ষ নায়ক শাকিব খান। আমার সৌভাগ্য যে শুরু থেকেই তার বিপরীতেই সিনেমাতে অভিনয় করছি। অভিনয়ের সবই তিনি আমাকে শিখিয়ে দিচ্ছেন প্রতি সিনেমাতে। আমি তার প্রতি কৃতজ্ঞ। আর আমাকে নিয়ে যেসব শ্রদ্ধেয় নির্মাতারা কাজ করছেন তাদের প্রতিও আমি আন্তরিকভাবে কৃতজ্ঞ।

তবে মনটা ভীষণ খারাপ আমার দুটো কারণে। প্রথমটি হচ্ছে আমাদের চলচ্চিত্রের অভিভাবক আমাদের নায়ক রাজ আমাদের ছেড়ে চলে গেছেন। আমার স্বপ্ন ছিল তারসঙ্গে একই ফ্রেমে অভিনয় করার। সেই স্বপ্ন আমার অধরাই থেকে গেল। নায়ক শব্দটি নিজের যথার্থতা খুঁজে পায় রাজ্জাক স্যারের সঙ্গে যুক্ত হয়ে ‘নায়ক’ আর ‘রাজ’ যেন একে অন্যের পরিপূরক। তাই নায়ক রাজ রাজ্জাক স্যার আমাদের মাঝে বেঁচে থাকবেন যুগের পর যুগ। দ্বিতীয় কারণ হচ্ছে- বন্যা। বন্যা কবলিত মানুষদের যেন আল্লাহ সহায় হন। তারা যেন এই দুর্যোগ কাটিয়ে উঠতে পারেন।’

     More News Of This Category