,

প্রথমবারের মতো ইজতেমার আখেরি মোনাজাত বাংলায়

নিউজ ডেস্ক : তাবলিগ জামাতের বিশ্ব ইজতেমায় এবার আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন বাংলাদেশি একজন আলেম। তিনি মোনাজাত করবেন বাংলায়। মোনাজাতের আগে হেদায়াতি বয়ানও হবে বাংলায়। বিশ্ব ইজতেমার ইতিহাসে এবারই প্রথম বাংলাতে হেদায়াতি বয়ান ও মোনাজাত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

বিশ্ব ইজতেমার মুরুব্বি মো. গিয়াস উদ্দিন জানান, শুক্রবার রাতে তাবলিগ জামাতের মুরব্বিদের এক বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে এবার আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করবেন কাকরাইল মসজিদের শুরা সদস্য মাওলানা হাফেজ মোহাম্মদ যোবায়ের। আখেরি মোনাজাতের আগে হেদায়াতি বয়ান করবেন বাংলাদেশের মাওলানা আব্দুল মতিন।

রবিবার শেষ হচ্ছে বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্ব। বেলা ১১টার দিকে আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

চার দিন বিরতির পর আগামী শুক্রবার থেকে শুরু হবে বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। এবার অনুষ্ঠিত হচ্ছে ৫৩তম বিশ্ব ইজতেমা। ১৯৬৫ সাল থেকে তাবলিগ জামাতের বিশ্ব ইজতেমা বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

সাধারণত ইজতেমায় হেদায়াতি বয়ান ও আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেন দিল্লি মারকাজ থেকে আসা মুরব্বিরা। দীর্ঘদিন ইজতেমায় আখেরি মোনাজাত পরিচালনা করেছেন দিল্লির মাওলানা যোবায়েরুল হাসান।

২০১৪ সালে তার ইন্তেকালের পর থেকে মোনাজাত পরিচালনা করে আসছেন দিল্লির মাওলানা সাদ। তবে এবার তাকে নিয়ে বিতর্ক চরম আকার ধারণ করে। আলেমদের প্রবল বিরোধিতার মুখে সরকারি সিদ্ধান্তে তাকে দিল্লি ফিরে যেতে হচ্ছে। ইতোমধ্যে শনিবার সকালে তিনি হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে উপস্থিত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

এবারের বিশ্ব ইজতেমার মোনাজাতের জন্য নির্বাচিত মাওলানা মোহাম্মদ যোবায়ের দীর্ঘদিন ধরে তাবলিগ জামাতের সঙ্গে সম্পৃক্ত। তিনি লালবাগ মাদ্রাসায় পড়াশোনা করেছেন। কাকরাইল মসজিদ সংলগ্ন মাদ্রাসার পরিচালক তিনি। তাবলিগ জামাতের শুরা সদস্য। ইজতেমার মাঠে তিনি দীর্ঘদিন ধরে বয়ান করে আসছেন এবং বিদেশি মেহমানদের বয়ান অনুবাদও করেছেন।

     More News Of This Category