কোরআন মুখস্থ করলেন দৃষ্টিহীন তরুণী

by sylhetmedia.com

এসবিএন ইসলামিক ডেস্কঃ মালয়েশিয়ায় শরিয়া আদালত চালু আছে। সেদেশের শিক্ষা ব্যবস্থায় ধর্মীয় শিক্ষার প্রভাব দারুণভাবে লক্ষণীয়। রয়েছে দেশটিতে প্রচুর মাদ্রাসা। কোরআন শিক্ষার প্রচলন দেশটির ঐতিহ্যের অংশবিশেষ।

মালয়েশিয়ার সরকারের উদ্যোগে জাতীয়ভাবে বয়স ও অংশভিত্তিক (পারা) হেফজুল কোরআন প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। সম্প্রতি শেষ হলো- মালয়েশিয়ায় ৩৭তম জাতীয় হেফজুল কোরআন প্রতিযোগিতা।

ওই প্রতিযোগিতায় দৃষ্টি প্রতিবন্ধী নুর হেদায়েত অংশগ্রহণ করে চমক সৃষ্টি করেছেন। ২২ বছর বয়সি এই নারী শিশুকাল থেকেই অন্ধ। বর্তমানে নূর মালয়েশিয়ার ইসলামিক স্টাডিজ জোহর কলেজে অধ্যয়নরত।

হেফজুল কোরআন প্রতিযোগিতার একমাত্র দৃষ্টি প্রতিবন্ধী প্রতিযোগী ছিলো সে। তার পুরো নাম নুর হেদায়েত মুহদ ইউসুফ। তিনি কোরআনে কারিমের প্রথম থেকে ১০ পারা পর্যন্ত মুখস্থ করেছেন। তার ইচ্ছা দ্রুততম সময়ের মধ্যেই পুরো কোরআন মুখস্থ করার।

এ প্রসঙ্গে নুর হেদায়েত বলেন, কোরআন হেফজ করা একটি উত্তম কাজ। বিশেষ করে যারা আমার মতো দৃষ্টিহীন। আমি ৩ বছর বয়স থেকেই ব্রেইল বর্ণমালায় কোরআন তেলাওয়াত করা শিখছি এবং ১৬ বছর বয়স থেকে কোরআন মুখস্থ করা শুরু করি।

নুর আরও বলেন, কোরআন হেফজের ক্ষেত্রে দৃষ্টিহীনতা আমাকে কোনো বাঁধা সৃষ্টি করতে পারেনি। আমি এই প্রথম বারের মতো কোনো জাতীয় প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করছি।

তবে এর পূর্বে আমি দু’বার জোহর প্রদেশে হেফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিলাম। নুর হেদায়েত ও তার ২৬ বছর বয়সী বড় ভাই দারুল কোরআন নামক মাদ্রাসায় কোরআন শিখেছেন।

উল্লেখ্য যে, মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠিত ৩৭তম জাতীয় হেফজুল কোরআন প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন প্রদেশের ৭৮ জন প্রতিযোগী অংশ নেয়। প্রতিযোগিতাটি মালয়েশিয়ার পেরাক রাজ্যের ইপো শহরে ১৬ ফেব্রুয়ারী শুরু হয়ে শেষ হয় ২০ ফেব্রুয়ারী।

Related Posts



cheap mlb jerseyscheap nfl jerseyscheap mlb jerseyscheap nhl jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseys