ছয় ম্যাচ পর হারল যে দল

by sylhetmedia.com

ক্রীড়া ডেস্ক : গেল বছরের অক্টোবর থেকে চলতি বছরের নভেম্বর পর্যন্ত টানা ছয়টি ম্যাচ জিতেছে ইংল্যান্ড। টি-টোয়েন্টিতে তাদের টানা জয়ের যাত্রা থামিয়ে দিল নিউজিল্যান্ড। পাঁচ ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয়টিতে আজ তারা মরগান বাহিনীকে হারিয়েছে ২১ রানে। ওয়েলিংটনে ইংল্যান্ডের ক্যাচ মিসের মহড়ার এই ম্যাচে নিউজিল্যান্ড প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৭৬ রান সংগ্রহ করে।

১৭৭ রান তাড়া করতে নেমে ইনিংসের প্রথম বলেই জনি বেয়ারস্টোকে হারায় ইংল্যান্ড। এরপর টপ অর্ডারে কেউ-ই সুবিধা করতে পারেননি। তাতে নির্ধারিত ২০ ওভারের কোটা পূর্ণ হওয়ার ১ বল আগে ১৫৫ রানে অলআউট হয়ে যায় ইংলিশরা।

যদিও ক্রিস জর্ডান দারুণ অলরাউন্ড নৈপূণ্য দেখান। বল হাতে তিনি ২৩ রান দিয়ে ৩ উইকেট নিয়ে নিউজিল্যান্ডকে বড় সংগ্রহ করা থেকে বিরত রাখেন। এই ৩ উইকেটের মধ্য দিয়ে তৃতীয় কোনো ইংলিশ বোলার হিসেবে টি-টোয়েন্টিতে ৫০ উইকেট শিকারের মাইলফলক স্পর্শ করেন। তার আগে স্টুয়ার্ড ব্রড ও গ্রায়েম সোয়ান এই মাইলফলক ছুঁয়েছিলেন।

এরপর ১৯ বলে ৩৬ রানের ক্যামিও ইনিংস খেলে জয়ের স্বপ্ন দেখান তিনি। ১৪তম ওভারে ইশ সোধিকে টানা তিন ছক্কা মেরে ব্যবধান কমিয়ে আনেন। তাতে জয়ের জন্য শেষ ৬ ওভারে ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ছিল ৫৭ রান। ১৬তম ওভারে জর্ডান আউট হওয়ার পর জয়ের ট্রাক থেকে ছিটকে যায় ইংল্যান্ড। জর্ডান ছাড়া ইয়ান মরগান ১৭ বলে ৩২ ও দাওয়িদ মালান ২৯ বলে ৩৯ রান করেন।

বল হাতে জর্ডানের পাশাপাশি স্যাম কুরান ২২ রান দিয়ে ২টি ও লুইস গ্রেগরি ১০ রান দিয়ে ১টি উইকেট নেন। গ্রেগরি আউট করেন কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমকে। যা তার আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারে প্রথম বলে প্রথম উইকেট।

ব্যাট হাতে নিউজিল্যান্ডের জিমি নিশাম ২২ বলে ৪২ রান করেন। মার্টিন গাপটিল করেন ৪১ রান। এ ছাড়া গ্র্যান্ডহোম ও রস টেলর ২৮টি করে রান করেন। তাতে ২০ ওভারে ১৭৫ রানের সংগ্রহ পায় কিউইরা।

প্রথমে বাজে ফিল্ডিং, এরপর টপ অর্ডারের নখদন্তহীন ব্যাটিং ইংল্যান্ডকে টানা জয়ের ট্রাক থেকে ছিটকে দেয়। বল হাতে ২৫ রান দিয়ে ৩ উইকেট নিয়ে ম্যাচসেরা নির্বাচিত হন মিচেল স্যান্টনার।

মঙ্গলবার নেলসনে তৃতীয় ম্যাচে মুখোমুখি হবে দল দুটি।

Related Posts