দ্রুত সময়ে গ্রহনযোগ্য ও অবাধ নিরেপেক্ষ নির্বাচনের প্রস্তাব নিয়ে ঢাকা আসছে ইইউ প্রতিনিধি দল

by sylhetmedia.com

এসবিএন নিউজ, বেলজিয়াম প্রতিনিধি: বাংলাদেশের চলমান রাজনীতি, মানবাধিকার ও মত প্রকাশের পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে ও দ্রততম সময়ে সব দলের অংশগ্রহণের মাধ্যমে অবাধ নিরপেক্ষ নির্বাচনের প্রস্তাব নিয়ে ইউরোপীয় পার্লামেন্টের একটি প্রতিনিধি দল ফেব্রুয়ারিতে ঢাকায় আসছে।

তিন দিনের বাংলাদেশ সফরে ইউরোপীয় পার্লামেন্টের সদস্যরা সরকারী দল ও বিরোধী দলের নেতাদের পাশাপাশি নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলবেন বলে জানা গেছে।

বেলজিয়ামের একটি কূটনৈতিক সূত্র গত শনিবার জানিয়েছে, সম্প্রতি ইউরোপীয় পার্লামেন্টের দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর সঙ্গে সম্পর্ক বিষয়ক প্রতিনিধি দল বা ডিএসএএসের নিয়মিত বৈঠকে বাংলাদেশে সফরের বিষয়টি জানান প্রতিনিধি দলের প্রধান জিন ল্যাম্বার্ট। তাঁর নেতৃত্বে ৪ সদস্যের প্রতিনিধি দলটি ১০ থেকে ১২ ফেব্রুয়ারী বাংলাদেশ সফর করবেন।

জিন ল্যাম্বার্টের নেতৃত্বাধীন ৪ সদস্যের ওই প্রতিনিধি দলের অন্য সদস্যরা হচ্ছেন ইউরোপীয় পার্লামেন্টের ইপিপি গ্রুপের সদস্য ইভান ষ্টিপেনও প্রগ্রেসিভ অ্যালায়েন্স অফ সোশ্যালিস্ট অ্যান্ড ডেমোক্র্যাটসের সদস্য রিচার্ড হাউয়িট, পার্লামেন্ট কর্মকর্তা ক্রিস্টাল আর্প।

২০১৪ সালের পর এই প্রথম ইউরোপীয় পার্লামেন্টের কোন প্রতিনিধি দল বাংলাদেশে আসছে। ৫ জানুয়ারী পরবর্তী রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও রানা প্লাজা ধসের পর বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্পের পরিস্থিতি কেমন তা দেখতে জিন ল্যাম্বার্টের নেতৃত্বে ৪ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল ২০১৪ সালের মার্চে ঢাকা সফর করেছিল।

এ ছাড়া গত ২৬ নভেম্বর ইউরোপীয় পার্লামেন্টে বাংলাদেশ নিয়ে একটি প্রস্তাব গৃহীত হওয়ার পর এ সফরটি হচ্ছে। ওই প্রস্তাবে বাংলাদেশে মত প্রকাশের স্বাধীনতা নিয়ে উদ্বেগ জানায় ইউরোপীয় পার্লামেন্ট। এই পরিস্থিতিতে বৈঠকে জিন ল্যাম্বার্ট ব্লগারদের হত্যার পাশাপাশি সাংবাদিকদের ওপরও হামলার উদ্বেগ জানান।

বেলজিয়ামের কূটনৈতিক সূত্রে জানা গেছে, এবারের সফরের সময় ইউরোপীয় পার্লামেন্টের প্রতিনিধি দলটি সরকারীদল ও বিরোধীদলের নেতা এবং নাগরিক সমাজের প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলবেন।

ব্রাসেলসের একটি কূটনৈতিক সূত্র জানায়, গত ১৪ জানুয়ারী ইউরোপীয় পার্লামেন্টের ডিএসএএসের নিয়মিত বৈঠকে বাংলাদেশের প্রসঙ্গ এলে দ্রুততম সময়ের মধ্য নতুন নির্বাচন ও পার্লামেন্টের গত ২৬ নভেম্বরের প্রস্তাব নিয়ে আলোচনা হয়।

ওই কর্মকর্তা মন্তব্য করেন, কয়েকটি হত্যাকাণ্ড ও সহিংস উগ্রপন্থার উত্থানের মধ্য দিয়ে ২০১৫ সালে বাংলাদেশে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি হয়েছে।

তিনি বৈঠকে আরো জানান, এ বছর অভিবাসন নিয়ে বাংলাদেশের সঙ্গে একটি সমন্বিত সংলাপ আয়োজন ইউরোপীয় ইউনিয়নের অগ্রাধিকারের তালিকায় আছে।

Related Posts



cheap mlb jerseyscheap nfl jerseyscheap mlb jerseyscheap nhl jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseyscheap jerseys