নগরীতে স্প্রে মারা নিয়ে দুইপক্ষের সংঘর্ষ : আহত ২০

by salim

সিলেট মিডিয়া  ডেস্ক  : হাতধোয়া ও জীবাণুনাশক স্প্রে কর্মসূচির জের ধরে দুই পক্ষের সংঘর্ষে ২০ জনের আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। বুধবার সন্ধ্যায় নগরীর পশ্চিম কাজলশাহ এলাকায় এই সংঘর্ষের ঘটনাটি ঘটে। সংঘর্ষ চলাকালে বেশ কিছু যুবককে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে হামলা করতে দেখা গেছে।

খবর পেয়ে কোতোয়ালি থানার ওসি (তদন্ত) সৌমেন মিত্রসহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি সেলিম মিঞা।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সারাদেশেই চলছে জনসচেতনতামূলক নানা কর্মসূচি। এরই ধারাবাহিকতায় সিলেট নগরীর পশ্চিম কাজলশাহ এলাকায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে হাতধোয়া ও জীবাণুনাশক স্প্রে কর্মসূচি নিয়ে এই সংঘর্ষের সুত্রপাত ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, কর্মসূচির আয়োজন করেন এতিম স্কুল রোডের কিছু যুবক। তারা পথচারীদের মধ্যে জীবাণুনাশক স্প্রে করছিলেন দিনব্যাপী। বিকেলের দিকে পশ্চিম কাজলশাহ এলাকার গিয়াস মিয়ার হাতে জীবাণুনাশক স্প্রে করেন যুবকরা। এতে তিনি রাগান্বিত হয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এরই জেরে তখন একদফা দুই এলাকার মানুষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

পরে সন্ধ্যার দিকে দ্বিতীয় দফা সচেতনতামূলক কর্মসূচি আয়োজনকারীদের একদল যুবক পশ্চিম কাজলশাহ এলাকায় গিয়াস মিয়ার বাসায় হামলা করে। হামলায় বেশ কয়েকটি দোকানপাট ভাংচুর ও বাসা-বাড়িতে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করা হয়। পরবর্তিতে কাজলশাহ এলাকাবাসী প্রতিরোধ গড়ে তুললে দুই পক্ষে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে ২০ জন আহত হন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, এতিম স্কুল রোডের জুমন, শরীফ, হিমেল, নাহিদের নেতৃত্বে বেশ কিছু যুবক দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে গিয়াস মিয়ার বাসায় হামলা চালিয়েছে। আহতরা হলেন- রাসেল আহমদ, সাকিব আহমদ, গৌছ মিয়া, মামুন, মান্না, শাকিল, সাইফুল ইসলাম, শাহনুর মিয়া, গিয়াস মিয়া, রুহেল, ইমন, জসিম প্রমুখ।

বিষয়টি নিয়ে সমাধানের চেষ্টা চালাচ্ছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা। ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আবুল কালাম আজাদ লায়েক এ তথ্যটি নিশ্চিত করেছেন।কোতোয়ালি থানা পুলিশ জানিয়েছে, এখনও এ ঘটনায় কোনো অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। থানায় যদি কোনো পক্ষ অভিযোগ দায়ের করে তবে পুলিশ পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Related Posts